মেনু নির্বাচন করুন

বায়রা বিক্ষাত জজবাড়ী

বায়রার বিক্ষাত জজ বাড়ী

০১। এই বাড়ীর মূল মালিক ছিলেন শশী ভূষণ সেন। তিনি নিজে এবং তাঁর দুই পুত্র গিরীজা ভূষন সেন ও বিনয় ভূষন সেন এ তিনজনই ততকালীন ব্রিটিশ আমলে এ দেশীয়দের জন্য রক্ষিত সর্ব্বোচ্চ পদে জেলা জজ হিসেবে কর্মরত ছিলেন। সংগত কারণেই এ বাড়ির নাম জজ বাড়ী হয়েছে। বর্তমানে এ বাড়িটি সরকারি সম্পত্তি হিসেবে আছে।

 

     ০২। জান যায়ে এ জজত্রয় যদিও কলকাতা থাকতেন প্রতি বছর দূর্গা পূজার সময় প্রতি বেশী গরীব-দূখিদের জন্য নৌকা বোঝাই করে অন্ন-বস্ত্র নিয়ে বায়রা এ বাড়িতে আসতেন। শুধু তাই নয় এরা ছিলেন সংষ্কৃতি মনা। যতদিন বায়রা থাকতেন গান বাজনা খেলা-ধুলায় এই গ্রামটিকে মূখরিত করে রাখতেন। বিচারক হিসেবে সবচেয়ে বিশী কখ্যাতি অর্জন করেছিলেন গিরীজা ভূষন সেন। তিনি এক গুরুত্বপূর্ণ মামলায় অত্যান্ত সাহসিকতার সাথে ইংরেজদের বিরুদ্ধে রায় দিয়েছিলেন।ইংরেজ সরকার এতে তাঁকে রায় বাহাদুর খেতাব দিয়েছিলেন।

 

     ০৩। মোট কথা এরা তিনজনই ছিলেন সফল বিচারক এবং বায়রা গ্রাম তথা সিংগাইর মানিকগঞ্জের গর্ব।

নাম

জন্ম

মৃত্যু

শশী ভূষন সেন

১৮৪০ খ্রিঃ

অজ্ঞাত

বিনয় ভূষন সেন

১৮৬৩ খ্রিঃ

১৯৩৮ খ্রিঃ

গিরীজা ভূষন সেন

১৮৭০ থ্রিঃ

১৯৪২ থ্রিঃ


Share with :

Facebook Twitter